১১ বছরের বেশি সময় প্রবাসে কাটিয়ে মারা গেলেন প্রবাসী, দাফনও হবে প্রবাসেই।

দক্ষিণ চট্টগ্রামের লোহাগাড়া বড়হাতিয়া ইউনিয়নের মো. ফরমান উল্লাহ (৪৭) নামের ওমান প্রবাসী এক যুবক ক’রো’নায় মা’রা গেছেন। আজ বুধবার বাংলাদেশ সময় সকাল পৌনে ৬টার দিকে ওমানের একটি হাসপাতালে তিনি মা’রা যান। বি’ষয়টি নিশ্চিত করেছেন বড়হাতিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম ডি জুনায়েদ। মৃ’ত ফরমান উল্লাহ বড়হাতিয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ চাকফিরানী মিয়া পাড়ার বা’সি’ন্দা।

মৃ’’ত ফরমান উল্লাহর ভাই হেফাজত উল্লাহ জানান, ফরমান প্রায় ১১ বছরের বেশি সময় ওমানে প্রবাস জীবন কা’টিয়েছেন। করো’নাকালে বাংলাদেশে আসার পর ল’কডা’উ’নের কিছু আগে তিনি আবার ওমানে চলে যান। প্রায় ৪০ দিন আগে শারীরিক অসু’স্থতা দেখা দিলে স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে যান। এরপর ক’রো’না পরীক্ষায় পরপর তিনবার রি’পোর্ট’ পজি’টিভ আসে।

চতুর্থবার নেগেটিভ রিপোর্ট এলেও আজ বুধবার বাংলাদেশ সময় সকাল পৌনে ৬টার দিকে ওমানের একটি হাসপাতালে মা’রা যান ফরমান উল্লাহ। সেখানে তাঁর খাবারের ক্যান্টিন ছিল। ওমানেই ফরমান উল্লাহর দা’ফন সম্পন্ন হবে বলেও জানান ভাই হেফাজত উল্লাহ। দক্ষিণ চট্টগ্রামের লোহাগাড়া বড়হাতিয়া ইউনিয়নের মো. ফরমান উল্লাহ (৪৭) নামের ওমান প্রবাসী এক যুবক ক’রো’নায় মা’রা গেছেন।

বুধবার বাংলাদেশ সময় সকাল পৌনে ৬টার দিকে ওমানের একটি হাসপাতালে তিনি মা’রা যান। বি’ষয়টি নিশ্চিত করেছেন বড়হাতিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম ডি জুনায়েদ। মৃ’ত ফরমান উল্লাহ বড়হাতিয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ চাকফিরানী মিয়া পাড়ার বা’সি’ন্দা। মৃ’’ত ফরমান উল্লাহর ভাই হেফাজত উল্লাহ জানান, ফরমান প্রায় ১১ বছরের বেশি সময় ওমানে প্রবাস জীবন কা’টিয়েছেন।

করো’নাকালে বাংলাদেশে আসার পর ল’কডা’উ’নের কিছু আগে তিনি আবার ওমানে চলে যান। প্রায় ৪০ দিন আগে শারীরিক অসু’স্থতা দেখা দিলে স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে যান। এরপর ক’রো’না পরীক্ষায় পরপর তিনবার রি’পোর্ট’ পজি’টিভ আসে। চতুর্থবার নেগেটিভ রিপোর্ট এলেও আজ বুধবার বাংলাদেশ সময় সকাল পৌনে ৬টার দিকে ওমানের একটি হাসপাতালে মা’রা যান সেখানে তাঁর খাবারের ক্যান্টিন ছিল। ওমানেই ফরমান উল্লাহর দা’ফন সম্পন্ন হবে বলেও জানান ভাই হেফাজত উল্লাহ।